শনিবার ১৫ মে ২০২১

১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮

ই-পেপার

Musaddik Ali Babu

জুন ১৭,২০২০, ০১:০৮

বেদনার তিব্র দাহন

 
ফ্যাক্টরিতে ১৮ জন মহিলা কর্মী নিয়োগের জন্য ৬৫ জন মহিলাকে ইন্টারভিউ নিলাম।
কসম কাউকে বাদ দিতে পাচ্ছিলাম না। মনে হচ্ছে তাদের প্রতিটি চোখের পানি আর অব্যাক্ত কান্না আমাদের কলিজায় আঘাত করছে। এরা কেউ তিন বেলা খেতে পারে না। যাদের সবারই মাসে আয় গড়পড়তায় ২০০০ থেকে ৩০০০ টাকা।
তাদের অসহায় কান্না দেখে আমিন ভাই আমাকে বার বার বলছে ভাই আমাকে ইন্টারভিউ তে রাখেন না আমি থাকলে কাউকে বাদ দিতে পারবো না। এদের আহাজারি আমি নিতে পারছি না। এদের সবাইকে রাখেন বসায়ে বসায়ে বেতন দিবো।
সত্যি এরা কতো অসহায়। এক পরিবারের কথা বলি পরিবারের ৭ জন সদস্য সবায়কে একজন ৫৫ বৎসরের মহিলা অন্যের বাড়িতে কাজ করে ৩০০০ টাকা পায় আর তাতে এই বড় সংসার চলে। এমনই অবস্থা অন্য সকলের কাউকে বাদ দিতে পারছিলাম না। কাউকে বাদ দেইনি। পাবনা পৌর শহরের ১ কিলোমিটার দূরের গ্রাম এটা।
আমরা যারা সমাজ কর্মী বলে পরিচয় দেই। জন প্রতিনিধি হিসাবে জাহির করি। কজনা খবর রাখি এ সকল অসহায়ের দিকে?
কোটি কোটি টাকা আসরে নষ্ট করে গর্ব করি। বাট এদের পাশে দাঁড়াতে পারি না। এ জন্য বুঝি আল্লাহর শাস্তিও নষ্টালজিক মানুষের উপরে পড়ে। কামনা করি আল্লাহ যেন সব সময় এ সকল অসহায়ের পাশে থাকার তৌফিক দান করেন।
ধন্যবাদ আমিন সাদিয়া সত্যি আপনার প্রতি মুগ্ধ।

POST COMMENT

For post a new comment. You need to login first. Login

COMMENTS(0)

No Comment yet. Be the first :)