শনিবার ১৫ মে ২০২১

১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮

ই-পেপার

Tania Akter

জুন ১৮,২০২০, ০৯:০৮

নারীর সৌর্ন্দয্য বৃদ্ধির উপায়

সৌর্ন্দয্য নারীর ভূষন। আর সৌর্ন্দয্য ধরে রাখার জন্য একজন নারীর নিয়মিত রূপচর্চা করা দরকার। ত্বকের সৌর্ন্দয্য বৃদ্দির জন্য বেসন ও মধু একসাথে মিশিয়ে ১০/১৫ মিনিট মুখে লাগিয়ে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে। সপ্তাহে ২ দিন এটি ব্যবহারের ফলে ত্বক উজ্জ্বল ও লাবন্যময় হয়ে উঠবে। এছাড়াও সুন্দর ত্বক পেতে হলে নিয়মিত এ্যালোভেরা জেল ব্যবহার করা যেতে পারে।

একজন নারীর সৌর্ন্দয্যের ক্ষেত্রে অন্যতম একটি দিক তার চোখ। অনেকের দেখা যায় চোখের নিচে কালো হয়ে গেছে। এই সমস্যা সমাধানের জন্য শশা কিংবা আলুর রস ব্যবহার করা যেতে পারে। চোখকে আর্কষনীয় করে তোলার জন্য বাহিরে বের হওয়ার পূ্র্বে চোখের নিচে কাজল ও মাশকারা ব্যবহার করা যেতে পারে।

একজন নারীর চুল সৌর্ন্দয্যের ক্ষেত্রে আরেকটি অন্যতম একটি দিক। একজন নারী যদি তার সৌর্ন্দয্য ধরে রাখতে চায় তবে তাকে রুটিন মেনে চলতে হবে। যেমন সপ্তাহে দু’দিন মাথার ত্বকে গরম তেল ম্যাসেজ করতে হবে বিশেষ করে রাতে। ফলে রক্ত চলাচল বৃদ্ধি পাবে, চুল প্রাণবন্ত হয়ে উঠবে। এছারা নিয়ম মেনে প্রতিদিন চুলে তেল দিতে হবে। কমপক্ষে দু’দিন শ্যাম্পু ব্যবহার করতে হবে।আর ভালো ফলাফলের জন্য অবশ্যই শ্যাম্পু ব্যবহারের পূর্বে চুলে তেল দিতে হবে। চুলের যত্নে মাইল্ড শ্যাম্পু খুবই উপকারী। এটি ব্যবহারের ফলে চুলের সৌর্ন্দয্য যেমন বৃদ্ধি পায় তেমনি খুশকিও দূর হয়।এছাড়া চুলে সপ্তাহে একবার টকদই লাগানো যেতে পারে। তেলের সাথে মেথি মিশিয়ে রেখে ঐ তেল ব্যবহার করলে চুল ঝলমলে হয়ে ওঠে। চুলের সৌর্ন্দয্য ধরে রাখার ক্ষেত্রে বিশুদ্ধ পানির বিকল্প নেই।

একজন নারীর ত্বক, চুল এমনকি সমস্ত শরীরকে পরিশুদ্ধ করার জন্য তেল ম্যাসাজ খুবই উপকারী। এ জন্য রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে আলতো করে সারা শরীরে নারিকেল তেল ম্যাসাজ করে ঘুমোতে যেতে হবে। এর ফলে ত্বক নরম, প্রাণবন্ত ও উজ্জ্বল হয়। এর ফলে শরীরে রক্ত চলাচল বৃদ্ধি পায়।

নারীর সৌর্ন্দয্য বৃদ্ধিতে ঘরোয়া ফেসিয়াল অত্যন্ত জরুরী। যদি কোন নারী রুটিন অনুযায়ী ফেসিয়াল করে তবে তার বাহ্যিক সৌর্ন্দয্য তো বাড়বেই পাশাপাশি স্নায়ুবিক সুস্থতা বাড়বে এবং ত্বকের নানা সমস্যার সমাধান হব। ফেসিয়ালের মাধ্যমে ত্বক থেকে ময়লা দূর হয়, ত্বকের দৃঢ়তা বৃদ্ধি পায়, ত্বকের ঝুলে পড়া রোধ হয় এবং এটি উজ্জ্বল প্রাণবন্ত ত্বক গঠনে সাহায্য করে। 

দেহের জন্য পানি অত্যাবশ্যক। পাশাপাশি দেহের সৌর্ন্দয্য ধরে রাখার জন্যও পানির কোন বিকল্প নাই। একজন নারীকে দৈনিক কমপক্ষে ৮ গ্লাস পানি পান করা উচিত। এর ফলে তার দেহে যেসব র্বজ্য পদার্থ থাকবে তা নিষ্কাসন হবে, চেহারা সুন্দর হবে। মোটকথা একজন নারীর প্রা্ণবন্ত ত্বকের জন্য বিশুদ্ধ পানি পান করা একান্ত আবশ্যক।

নারীদের সুন্দর শরীরের মূল রহস্য হচ্ছে যোগব্যায়াম। র্বতমানে অনেক নারী আছে যারা নিয়মিত যোগব্যায়াম করেন। এ জন্য তারা সুন্দর,উজ্জ্বল ত্বক ও শান্ত মানসিকতার অধিকারী হয়। এমনকি যোগব্যায়াম এর মাধ্যমে তারা তাদের সুঠাম স্বাস্থ্য গড়ে তুলে। তাই বলা যায় একজর নারীর সৌর্ন্দয্য বৃদ্দির ক্ষেত্রে যোগব্যায়ামটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ। কেননা যোগ ব্যায়ামের মাধ্যমে যেমন হজমশক্তি বাড়ে তেমনি মুখে ব্রণ হওয়া বন্ধ হয়। এছাড়াও বিভিন্ন শারীরিক এবং মানসিক সমস্যা দূর হয়। ভালো স্বাস্থ্যের মূল ভিত্তি হচ্ছে সুশৃঙ্খল জীবনযাপন। একজন নারীকে তার সৌর্ন্দয্য বৃদ্ধির জন্য দৈনিক ৬-৮ ঘন্টা ঘুমোতে হবে। এছাড়াও পুষ্টিকর ও স্বাস্থ্যসম্মত খাদ্য গ্রহণ করতে হবে। প্রতিদিন সকাল সকাল ঘুম থেকে উঠতে হবে। মোট কথা নিয়মানুবর্তি হতে হবে। আর এটাই হলো একজন নারীর সুন্দর চেহারার গোপন রহস্য।

লেখক-তানিয়া আক্তার

POST COMMENT

For post a new comment. You need to login first. Login

COMMENTS(0)

No Comment yet. Be the first :)