শনিবার ১৫ মে ২০২১

১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮

ই-পেপার

স্টাফ রিপোর্টার

প্রিন্ট সংস্করণ

আগস্ট ২২,২০২০, ০২:১৭

শিশুকন্যার ছবিতে বাজে মন্তব্য নিয়ে সাকিবের স্ত্রী যা বললেন

নিজের শিশুকন্যার ছবিতে বাজে মন্তব্যকারীদের বিষয়ে মুখ খুলেছেন ক্রিকেটের বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাবিক আল হাসানের স্ত্রী উম্মে আহমেদ শিশির। এসব মন্তব্যকে তিনি পাত্তা না দিয়ে বলেছেন, বরং এই ব্যাপারটিকে বড় করে আলোচনায় নিয়ে আসাটা তাদের পছন্দ হয়নি। সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে সূর্যমুখী ফুলের এক বাগানে পরিবার নিয়ে ঘুরতে গিয়েছিলেন বাংলাদেশের ক্রিকেট তারকা সাকিব আল হাসান। সেখানে তার শিশুকন্যার কয়েকটি ছবি তুলে নিজের ভেরিফায়েড ইন্সটাগ্রাম অ্যাকাউন্টে তিনি আপলোড করেন। মুহূর্তেই ওই ছবির নীচে অসংখ্য কমেন্ট পড়তে থাকে। এর মধ্যে গুটিকয় মন্তব্য ছিল বেশ বাজে। এ ব্যাপারে নিজের প্রতিক্রিয়া জানিয়ে সাকিব আল হাসানের স্ত্রী  নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পাতায় ইংরেজিতে একটি স্ট্যাটাস লিখেছেন। তাতে তিনি লিখেছেন,  ‘এই ব্যাপারটা নিয়ে কি ঘটছে, সে সম্পর্কে আমার কোন ধারণাই ছিল না। এটা আসলে আমাদের জন্য কোন ব্যাপার না। কারণ পাবলিক ফিগার হিসাবে আমাদের অনেক ভক্ত আর অনুসারী রয়েছে, সেখানে অবশ্যই শুভাকাঙ্ক্ষীদের পাশাপাশি সমালোচনাকারীও রয়েছে। আমরা সবসময়েই মনোযোগের কেন্দ্রে থাকি, সেটা অবশ্যই ভালো দিক। বিষয়টি নিয়ে সামাজিক মাধ্যমে আলোচনা-সমালোচনায় বিরক্তি প্রকাশ করে তিনি লিখেছেন, ‘বিশ্বের অনেক দেশের তারকারা এ ধরণের মন্তব্যের শিকার হন, কিন্তু প্রতিবাদ করার নামে সেখানে মোবাইল ঘেঁটে হাজার হাজার ভালো মন্তব্যের ভেতর থেকে ৪-৫টা খারাপ মন্তব্য খুঁজে বের করার সময় কারো নেই। হাজার হাজার ভালো মন্তব্যের ভেতর থেকে মাত্র ৪-৫টি খারাপ মন্তব্য নিয়ে পুরো ব্যাপারটা ঘটছে। উম্মে আহমেদ শিশির এই ঘটনার জন্য কয়েকটা ফেসবুক পাতার অ্যাডমিনদের দায়ী করেছেন। তিনি লিখেছেন, ‘আমি এসব মন্তব্যকারীদের কিছু বলবো না, কারণ ওদের নিয়ে আমি বিরক্ত নই। কিন্তু আমি বিরক্ত কিছু ফেসবুক পাতার অ্যাডমিনদের ওপর, যারা ওই ৪টি মন্তব্য খুঁজে বের করে, যেটা কোন ঘটনাই নয়, সেটাকে বড় ঘটনা বানিয়েছেন ।তিনি ফেসবুক পাতার অ্যাডমিনদের উদ্দেশ্যে লিখেছেন, ‘এই সুযোগে আপনারা আপনাদের পাতার প্রচার কামিয়ে নিন। কিন্তু এসব আমাদের উদ্দেশ্য অথবা জীবনযাপনে কোন পরিবর্তন আনবে না। কারণ এসব তুচ্ছ ব্যাপারে আমরা কোন গুরুত্ব দেই না। স্ট্যাটাসের শেষে তিনি লিখেছেন, ‘আমার ছবির নীচে মন্তব্য দেখার জন্য আপনার বসার দরকার নেই, সেটা সময়ের অপচয়।

POST COMMENT

For post a new comment. You need to login first. Login

COMMENTS(0)

No Comment yet. Be the first :)